Contact us to get featured in Entrepreneurs Magazine TSM | Call: 01684722205

“স্বনির্ভরশীল একজন নারী হিসেবে নিজের পরিচয়ে পরিচিত হওয়া বড় চ্যালেঞ্জ। ” শারমিন আক্তার কাজরী

আমি শারমিন আক্তার কাজরী, ফেসবুক নেম kazori kazol, জন্মস্থান কুড়িগ্রামে। বিয়ের পর স্বামি সূত্রে রংপুর এখন স্থায়ীনিবাস। তাই নিশবেতগঞ্জ, বদরগঞ্জ রোডে আমার বাসা।

১৫ জানুয়ারি, ২০২০ থেকে আমার উদ্যোক্তা হিসেবে পথ চলা শুরু করি।আমার উদ্যক্তা জীবনের শুরুর গল্পটা একটু বলি। শুরু করেছি ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসের  মাঝামাঝি সময়ে। আমার পেশা ছিল মূলত লোগো ডিজাইন এ ফ্রিল্যান্সিং।
কাজগুলো ছিল বেশির ভাগই ইউ এস, ইউ কে সহ বাইরের দেশের।  ভালোই চলছিল। যেহেতু বাইরের দেশের কাজ যখন করোনা ভাইরাস  সারা বিশ্বে আক্রমন চালিয়ে যাচ্ছিল,  তখন সব ফ্রিলাঞ্চিং সাইট গুলো প্রায় ঝিমিয়ে যাচ্ছিল।সেই সময়ে কিছুদিন অপেক্ষা করতে করতে ভাবছিলাম কি করব কি করা যায়।তখন ঘরে বসে বসে সেল গ্রুপগুলো তে লাইভ দেখতাম প্রচুর,আর মনে হত আমিও কিছু একটা নিয়ে কাজ করব।শুধু শুধু রান্না-সেরে ঘরে বসে সময়  নস্ট করার মত মেয়ে আমি না। একটা কাজ তো করতেই হবে, তবে কিভাবে কি?? এই ভেবে পাই না। তখন ঢাকা থেকে অনলাইনে  ডিজিটাল মার্কেটিং এ একটা কোর্স করার সিন্ধান্ত নিয়ে ফেলি আর সেখান থেকেই শুরু হয় আমার ভার্চুয়াল দেশীয় ইনকাম। সেই অফিসেই অনলাইনে জব করি।

তারপর ‌সেই জব টা ছিল পার্ট টাইম। আর ভাবছিলাম এই লার্নিং টা আমার কাজে লাগানো উচিত। আর এই শিক্ষাটা উপলব্ধি করছিলাম দেশ যত এগিয়ে যাচ্ছে ততই ডিজিটাল  নির্ভর হচ্ছে।আমিও ই-কমার্স বিজনেস করতে পারি , তবে পন্য নির্বাচনে ভেবেছি অনেক, দেশী পন্য নিয়ে করব এটাই ছিল লক্ষ্য।  আমি যেটা জানি,জানার সোর্স আছে,ভালো লাগে, যা একটু ইউনিক তেমন কিছুই করব।

‌তাই দেখলাম এগুলোর সাথে মিলে গেল আমার ভালো লাগার “শতরঞ্জি ” আমার নিজ শহরে এর উৎপত্তি হওয়ায়  অনেক অল্প সময়ে আত্নস্থ করে শুরু করতে পেরেছি।
‌ফেসবুক পেজ থেকেই কাজ শুরু করি, ১৫ জানুয়ারি ২০ থেকে।
‌কাজ করতে থাকি,এমন সময় একদিন _ফেসবুকে উইমেন ই-কমার্চ ফোরাম এই গ্রুপ টা কে পেয়ে যাই তারপর জয়েন করি ২৫ জুন ২০২০ এ। এখান থেকেও অনেক সেল করেছি আলহামদুলিল্লাহ। এই গ্রুপে এক্টিভিটি বাড়াতে পারলে অনেক ভালো সুফল আসে,আসবেই।

শুরুটা এই ভেবেনিয়েছিলাম বিজনেস মানেই শুরুটা স্ট্রাগল থাকবে,তাই সেটাকে পজেটিভ নিয়েই এগিয়ে চলছি, এখনো চলছে, আসলে ভার্চুয়াল কিছু করছি এটা পরিবার, আশেপাশে সবাইকে বুঝিয়ে দিয়ে এগিয়ে চলাটাও বড় চ্যালেঞ্জ।

অনেক অভিজ্ঞতা এক কথায় বলা যাবে না,এখনো হচ্ছে প্রতিনিয়ত ই। তবে বিজনেস নিয়ে এগিয়ে যেতে হলে লেগে থাকার বিকল্প নেই।অনলাইন  বিজনেস করতে হলে অনেক বেশি ধৈর্য শীল হতে হবে।

যেহেতু সংসারের নানান ঝামেলা একজন গৃহিনির পাশাপাশি এটা নিয়ে কাজ করছি। মাঝখানে মার্চ- এপ্রিল, মে টোটালি প্রায় বন্ধ ছিল করোনা এবং পারিবারিক ঝামেলার কারণে। প্রতিনিয়ত ই কাজ  করতে চেস্টা করছি  তারপরও আলহামদুলিল্লাহ এখন পর্যন্ত সেল প্রায় ৭ লক্ষ প্লাস।সবাই দোয়া করবেন আমার জন্য।

ভবিষ্যৎ এর প্লান হলো বিজনেস পরিচিতি নিয়েই সফলভাবে স্বনির্ভরশীলতা ধরে রেখে এগিয়ে নিয়ে বড় উদ্যোক্তা হতে চাই। আমার পরিচয়ে আমি পরিচিত হয়ে থাকতে চাই সবার মাঝে।
আর সবশেষে বলতে চাই অবশ্যই এই ম্যাগাজিন টা বড় ভুমিকা রাখছে নুতুন উদ্যোক্তাদের পরিচিতি করার জন্য। ধন্যবাদ জানাই এই ম্যাগাজিনের উদ্যোগের স্বত্তাধীকারী কে।
আরও কিছু সুযোগ তৈরি করবেন নুতুনদের জন্য  ভবিষ্যতে এই আশা করি।

আমার ফেসবুক আইডি ঃ https://www.facebook.com/kazori.kazol
মোবাইল & হোয়াটসঅ্যাপ ঃ 01767435252
আমার ফেসবুক পেজের লিংকঃ https://www.facebook.com/satoronjii/



S.Z.PRINCE

facebookhttps://web.facebook.com/S.Z.PRINCE

WhatsApp no. 01684722205

Magazine page: https://web.facebook.com/TSMEntrepreneursMagazine

আপনিও আপনার গল্প শেয়ার করতে চাইলে আমাকে ম্যাসেজ করতে পারেন।